ডিনথি

ডিনথি/ ডি নথিতে ডাক বাছাইকরন প্রক্রিয়া, ডাক আপলোড, খসড়া ডাকের তালিকা, ডাক সিল তৈরি করার নিয়ম

আল্লাহর রহমতে সবাই ভাল আছেন। আমরা ইতিমধ্যে ডিনথি ব্যবহারের ৫ টি পর্ব শেষ করেছি। ডিনথি ব্যবহারের পোস্টগুলি এখানে দেখানে আসতে পারেন। কিভাবে ডিনথি ব্যবহার করবেন (পর্ব ২) তা নিয়ে সম্পূর্ণ টিউটোরিয়াল ধারাবাহিকভাবে উপস্থাপন করেছি,

ডিনথি তে ডাক বাছাইকরন প্রক্রিয়া, ডাক আপলোড, খসড়া ডাকের তালিকা, ডাক সিল তৈরি করার নিয়ম
ডিনথি তে ডাক বাছাইকরন প্রক্রিয়া, ডাক আপলোড, খসড়া ডাকের তালিকা, ডাক সিল তৈরি করার নিয়ম

 

প্রথম পর্ব পর্বে ডিনথি ড্যাশবোর্ড সম্পর্কে খুঁটিনাটি জেনে নিন (পর্ব ১) এর উপর এবং 

তৃতীয় পর্বে ডিনথিতে কিভাবে ডাকডাক সার্চআগত ডাকডাক প্রেরণ করবেন (পর্ব-৩)

নতুন নিয়মে ডিনথিতে ডাক প্রেরণট্যাগিংডাক ফোল্ডারনথিজাত করার উপায় (পর্ব-৪) 

এবং কিভাবে ডাক নথিতে উপস্থাপন, নথিজাত, আর্কাইভড, ডাক বাছাই করবেন 

আলোচনা করা হয়েছে। ​​আজ এ পর্বে ডাক বাছাইকরন প্রক্রিয়া, প্রেরিত ডাক, ডাক আপলোড, দাপ্তরিক ডাক আপলােড, মূল ডাক ও সংযুক্তি সমূহ, প্রেরক, ডাকের বিবরণ, প্রাপক, ডাক সিল তৈরি, নাগরিক ডাক, খসড়া ডাকের তালিকা, নিবন্ধন বহি, প্রতিবেদনসমূহ ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা করব। কিভাবে ডিনথি/ ডি নথি ব্যবহার, কিভাবে ডাক বাছাইকরন প্রক্রিয়া, ডাক আপলোড, খসড়া ডাকের তালিকা, ডাক সিল তৈরি করবেন তা করার নিয়ম। how to select dak upload dak.   

০১. ডাক বাছাইকরণ প্রক্রিয়াঃ

ডাক তালিকা থেকে ডাক বাছাই করলে উপরে একটি ডাক সটিং নামের বাটন দেখা যাবে, এতে ক্লিক করলে ব্যহারকারীর শেয়ারকৃত ডাকের মূল-প্রাপক এবং অনুলিপি-প্রাপক বাছাই করতে পারবেন, অগ্রাধিকার ড্রপ-ডাউন বক্স থেকে অগ্রাধিকার বাছাই করতে পারবেন, গােপনীয়তা ড্রপ-ডাউন বক্স থেকে ডাকের গােপনীয়তা বাছাই করতে পারবেন এবং সিদ্ধান্ত অথবা ডিফল্ট সিদ্ধান্ত বাছাই করতে পারবেন। এ কার্যক্রম গুলাে হয়ে গেলে নিচে সংরক্ষণ বাটন দেখতে পাবেন এবং সংরক্ষণ বাটনে ক্লিক করলে তা ডাক বক্স এর তালিকায় সংরক্ষিত হবে এবং যিনি শেয়ার দিয়েছিলেন তিনি তার বাছাইকৃত ডাক মেন্যুতে তা দেখতে পাবেন এবং প্রেরণ করতে পারবেন। উল্লেখ্য যিনি ডাক বাছাইকরণ এর কাজ করবেন তিনি প্রেরণ ব্যতীত উপরে উল্লেখিত সকল কার্যক্রম করে দিতে পারেন।

০২. প্রেরিত ডাকঃ

ডিনথি/ ডি নথি ব্যবহারকারী বাম পাশের মেন্যু থেকে প্রেরিত ডাকে ক্লিক করে প্রেরিত ডাকের তালিকায় প্রবেশ করতে পারবেন। প্রেরিত ডাকের তালিকায় থেকে ডাক ফেরত আনা যাবে এর জন্য যে ডাকটি ফেরত আনা প্রয়ােজন তার উপর মাউস হােভার করলে ডান পাশে কিছু অ্যাকশন বাটন দেখা যাবে। সেখান থেকে ফেরত আনার বাটনে ক্লিক করলে একটি ম্যাসেজ আসবে আপনি কি ডাকটি ফেরত আনতে চান?’। কনফার্মেশন ম্যাসেজ থেকে হ্যাঁবাটনে ক্লিক করলে ডাকটি ফেরত চলে আসবে। উল্লেখ্য ব্যবহারকারী যাদের কাছে ডাক প্রেরণ করেছেন তারা যদি ডাকটি দেখে ফেলেন তাহলে আর ফেরত আনা যাবে না। ব্যবহারকারী প্রেরিত ডাকের গতিবিধি এবং ডাক ট্যাগ করতে পারবেন যা পূর্বে আলােচনা করা হয়েছে। ব্যবহারকারী প্রেরিত ডাকের বিস্তারিত দেখতে চাইলে প্রেরিত ডাকের তালিকা থেকে প্রয়ােজনীয় ডাকের উপর ক্লিক করলে তার বিস্তারিত পেইজ ওপেন হবে।

০৩. ডাক আপলােডঃ

ডিনথি/ ডি নথি ব্যবহারকারী বাম পাশের মেনু থেকে ডাক আপলােড মেন্যুতে ক্লিক করলে দাপ্তরিক ডাক, নাগরিক ডাক এবং খসড়া ডাক নামের তিনটি সব মেনু প্রদর্শিত হবে যেখান থেকে দাপ্তরিক এবং নাগরিক ডাক আপলােড করা যাবে। ডাক আপলােড করে সংরক্ষণ করার পর তা খসড়া ডাকের তালিকায় পাওয়া যাবে। দাপ্তরিক এবং নাগরিক ডাক এর মধ্যে মূল পার্থক্য হচ্ছে দাপ্তরিক ডাককে স্মারক নাম্বার থাকে কিন্তু নাগরিক ডাক এ স্মারক নাম্বার থাকে না। পাের্টাল থেকে নাগরিক আবেদনগুলাে নাগরিক ডাক হিসেবে আপলােড করা যায়। নীচের অনুচ্ছেদে দাপ্তরিক এবং নাগরিক এক আপলােড করার প্রক্রিয়া আলােচনা করা হল।

৩.১. দাপ্তরিক ডাক আপলােডঃ

ডিনথি/ ডি নথি ব্যবহারকারী বাম পাশের মেনু থেকে ডাক আপলােড মেনু তে ক্লিক করলে দাপ্তরিক ডাক সাব-মেনুটি প্রদর্শিত হবে। দাপ্তরিক ডাক সাব-মেনুতে ক্লিক করলে দাপ্তরিক ডাক আপলােড করার ফরমটি ওপেন হবে। দাপ্তরিক ডাক আপলােড ফরমটি মূলত চার ভাগে বিভক্ত: মূল ডাক ও সংযুক্তিসমূহ অংশ, প্রেরক অংশ, ডাকের বিবরণ অংশ ও প্রাপক অংশ।

৩.২. মূল ডাক ও সংযুক্তি সমূহঃ 

ডিনথি/ ডি নথি ব্যবহারকারী মূল ডাক ও সংযুক্তি সমূহ অংশেফাইল নির্বাচননামের একটি ব্রাউজ করার ফিল্ড দেখতে পাবেন যেখানেব্রাউজবাটন এ ক্লিক করে মূল ডাক এবং একাধিক সংযুক্তি আপলােড করতে পারবেন। আপলােডকৃত ডাকের বামদিকে মূল পত্র নামে একটি কলাম দেখা যাবে যেখানেরেডিও বাটনপ্রদর্শিত আছে।রেডিওবাটন ক্লিকের মাধমে মূল ভাকটি বাছাই করা যাবে। ব্যবহারকারী যদি আপলােডকৃত মূল ডাক ডাকের সংযুক্তির ফাইলের নাম পরিবর্তন করতে চান তাহলে আপলােডকৃত ডাক সংযুক্তি তালিকাতে সংযুক্তি নামক একটি কলাম দেখা যাবে যেখানে টেক্সট ফিল্ড থেকে পরিবর্তন করা যাবে। ব্যবহারকারী মূল ডাক হিসেবে শুধু ইমেজ অথবা পি ডি এফ ফাইল আপলােড করতে পারবেন। ডিনথি/ ডি নথি সিস্টেমে সর্বোচ্চ ফাইল সাইজ ২৫ মেগাবাইট পর্যন্ত আপলােড করা যাবে। মূলপত্র চেক বক্সের মাধ্যমে বাছাই করলে কার্যক্রম অংশে ‘OCR’ ব্যবহার করুন নামের একটি বাটন দেখতে পাবেন, এতে ক্লিক করলে আপলােডকৃত শুধুমাত্র ইমেজ ফাইলটির বাংলা টেক্সট গুলাে ডাকের বিবরনে অটোম্যাটিক এডিটেবল অবস্থায় ভিউ করবে। অপ্রয়ােজনীয় সংযুক্তি মুছে ফেলার জন্য কার্যক্রম অংশ থেকে ডিলিট বাটনে ক্লিক করতে হবে, তাহলে সংযুক্তি মুছে ফেলা যাবে।

ব্যবহারকারী আপলােডকৃত মূল ডাকটিকে শুধুমাত্র ইমেজ ফাইল থেকে OCR টেক্সট এ রূপান্তর করতে পারবেন। ডাকের বিবরণ থেকে প্রয়ােজনীয় টেক্সট কপি অথবা এডিট আপডেট করে ডাকের বিভিন্ন টেক্সট ফিল্ডে ব্যবহার করতে পারবেন।

৩.৪. প্রেরকঃ

প্রেরক অংশ থেকেপ্রেরক বাছাই করুনবাটন এ ক্লিক করলে ডানদিকে একটি পপ-আপ উইন্ডাে ওপেন হবে। ব্যবহারকারী অফিসার খুঁজুন, অফিসার বাছাই করুন, নিজ তথ্য লিখুন তিনটি ট্যাব দেখতে পাবেন। ব্যবহারকারী অরগানােগ্রাম থেকে মন্ত্রণালয়, মন্ত্রণালয়/ বিভাগ, কার্যালয়, দপ্তর/ শাখা, পদ বাছাই করে নির্দিষ্ট অফিসার বের করতে পারবেন। ডিনথি/ ডি নথি সিস্টেমে যে কর্মকর্তা যুক্ত নেই, সে কর্মকর্তার তথ্য লেখার জন্যনিজে তথ্য লিখুনট্যাব এ ক্লিক করলে ব্যবহারকারী নিজে তথ্য লেখার জন্য কিছু টেক্সট ফিল্ড দেখতে পাবেন। টেক্সট ফিল্ড গুলাে ফিল-আপ করেনিশ্চিত করুনবাটন এ ক্লিক করলে প্রেরক বাছাই হয়ে যাবে।

৩.৫. ডাকের বিবরণঃ 

ডাকের বিবরণ অংশ থেকে ব্যবহারকারী ডাকের স্মারক নম্বর, তারিখ, প্রেরণের মাধ্যম, বিষয় দিতে পারবেন এবং ডাকের অগ্রাধিকার গােপনীয়তা বাছাই করতে পারবেন। যে ফিল্ডে লাল (*) চিহ্ন দেওয়া আছে সেগুলাের তথ্য বাধ্যতামূলক পূরণ করতে হবে।

৩.৬. প্রাপকঃ 

প্রাপক অংশে ডানদিকেনিজ ডেস্ক প্রেরণএকটি বাটন আছে সেখানে ক্লিক করলে একটি পপ-আপ নােটিফিকেশান প্রদর্শিত হবে যেখানেহ্যাঁএবংনাদুইটি বাটন প্রদর্শিত হবে।হ্যাঁবাটন এ ক্লিক করলে নিজ ডেস্কে প্রাপক হিসেবে বাছাই হয়ে যাবে। এছাড়াও ব্যবহারকারী সার্চ বক্স এর নিচে প্লাস বাটন এ ক্লিক করে প্রাপক যুক্ত করতে পারবেন এবং সার্চ বক্স থেকে যুক্তকৃত প্রাপক সার্চ করে প্রাপক হিসেবে যুক্ত করতে পারবেন। ব্যবহারকারী অফিসার খুঁজুন সার্চ বক্স এ অফিসার সার্চ করতে পারবেন এবং অফিসার খুঁজুন সার্চ বক্সের নিচে প্লাস বাটন এ ক্লিক করে প্রাপক যুক্ত করতে পারবে। এখানে ব্যবহারকারী মূল প্রাপক একজন এবং অনুলিপি প্রাপক একাধিক নির্বাচন করতে পারবেন।

৩.৭. ডাক সিল তৈরিঃ

ডিনথি/ ডি নথি ব্যবহারকারী প্লাস বাটন এ ক্লিক করার পর প্রাপকের তালিকা তৈরি করুন একটি পপ-আপ উইন্ডাে ওপেন হবে। যেখান বাম দিকে পদবি নির্বাচন করুন ডানদিকে নির্বাচিত পদসমূহ প্রদর্শিত হবে। বামদিকে পদবি নির্বাচন করুন এর নিচে দুইটি ট্যাব নিজ অফিসের পদসমূহ এবং অন্য অফিসের সদসমূহ রয়েছে। নিচে প্রাপক খুঁজুন সার্চ বক্স রয়েছে যেখানে প্রাপক এর পদবি অথবা নাম দিয়ে সার্চ করা যাবে। প্রাপক খুঁজুন সার্চ বক্স এর নিচে নিজ অফিসের প্রাপক এবং প্রাপকের পদবি প্রদর্শিত হবে। প্রদর্শিত প্রাপকের বাম দিকে চেক বক্স সিলেক্ট করলে সিলেক্টকৃত প্রাপক ডানদিকে নির্বাচিত পদসমূহের তালিকাতে যুক্ত হয়ে যাবে। সর্বশেষসংরক্ষণ করুনবাটন এ ক্লিক করলে সংরক্ষণকৃত প্রাপক ডাক আপলােড পেইজের নিচে প্রাপক তালিকাতে যুক্ত হবে। ব্যবহারকারী নিজ অফিস এর প্রাপক বাছাই ছাড়াও অন্য অফিস এর প্রাপক এ বাছাই করতে পারবে। এখানে অন্য অফিসের পদসমূহ ট্যাব এ ক্লিক করলে অফিস বাছাই করুন এর নিচে একটি ড্রপডাউন বক্স দেখা যাবে যেখান থেকে ব্যবহারকারী ক্লিক করে অফিস নির্বাচন করতে পারবে এবং নিচে নির্বাচিত অফিস এর প্রাপক পদবি দেখা যাবে এছাড়াও ব্যবহারকারী প্রাপক খুঁজুন সার্চ বক্স এ প্রাপক সার্চ করতে পারবে। প্রদর্শিত প্রাপকের বাম দিকে চেক বক্স এ সিলেক্ট করলে সিলেক্টকৃত প্রাপক ডানদিকে নির্বাচিত পদসমূহের তালিকাতে যুক্ত হয়ে যাবে। সর্বশেষসংরক্ষণ করুনবাটন এ ক্লিক করলে সংরক্ষণকৃত প্রাপক ডাক আপলােড ফর্ম এর নিচে প্রাপক তালিকাতে যুক্ত হবে। সর্বশেষে ডাক আপলােড পেইজের নিচেখসড়া সংরক্ষণএবংপ্রেরণবাটন আছে। খসড়া সংরক্ষণ করতে চাইলেখসড়া সংরক্ষণবাটনে ক্লিক করতে হবে। তাহলে ডাকটি খসড়া হিসেবে সংরক্ষণ হয়ে যাবে। ব্যবহারকারী ডাকটি প্রেরণ করতে চাইলেপ্রেরণবাটনে ক্লিক করতে হবে। তাহলে ডাকটি সফলভাবে প্রেরণ হয়ে যাবে।

১৮. নাগরিক ডাকঃ

ডিনথি/ ডি নথি ব্যবহারকারী বাম পাশের মেন্যু থেকে ডাক আপলােডমেন্যুর অধীনে নাগরিক ডাকসাব-মেনুতে ক্লিক করলে নাগরিক ডাক আপলােড করার পেইজটি ওপেন হবে। নাগরিক ডাক আপলােডের পেইজে আপলােডকৃত কার্যক্রম একই শুধু ডাকের বিবরণীতে একটু ভিন্নতা রয়েছে। ব্যবহারকারী মূল ডাক ও সংযুক্তি সমূহ অংশে ফাইল নির্বাচন করুন একটি ব্রাউজ ফিল্ড দেখতে পাবেন।ব্রাউজবাটনে ক্লিক করে মূল ডাক এবং একাধিক সংযুক্তি আপলােড করতে পারবেন। আপলােডকৃত ডাকের বামদিকে মূল পত্র নামে একটি কলাম দেখা যাবে যেখানেরেডিওবাটন প্রদর্শিত আছে।রেডিওবাটন ক্লিক এর মাধমে মূল ডাকটি বাছাই করা যাবে। ব্যবহারকারী যদি আপলােডকৃত মূল ডাক ডাকের সংযুক্তির ফাইল নাম পরিবর্তন করতে চান তাহলে আপলােডকৃত ডাক সংযুক্তি তালিকাতে সংযুক্তি নামক একটি কলাম দেখা যাবে যেখানে টেক্সট ফিল্ড থেকে পরিবর্তন করা যাবে। ব্যবহারকারী মূল ডাক হিসেবে শুধু ইমেজ অথবা পি ডি এফ ফাইল আপলােড করতে পারবেন। ডিনথি/ ডি নথি সিস্টেমে ফাইল সাইজ সর্বোচ্চ ২৫ মেগাবাইট পর্যন্ত আপলােড করা যাবে। মূলপত্র চেক বক্সের মাধ্যমে বাছাই করলে কার্যক্রম অংশে OCR ব্যবহার করুননামের একটি বাটন দেখতে পাবেন, এতে ক্লিক করলে শুধুমাত্র আপলােডকৃত ইমেজ ফাইলটি বাংলা টেক্সট গুলাে ডাকের বিবরণে অটোম্যাটিক এডিটেবল অবস্থায় ভিউ করবে। অপ্রয়ােজনীয় সংযুক্তি মুছে ফেলার জন্য কার্যক্রম অংশ থেকে ডিলিট বাটনে ক্লিক করতে হবে, তাহলে সংযুক্তি মুছে ফেলা যাবে।

নাগরিক ডাকে ডাকের বিবরণ অংশে নাগরিকের- ন্যাশনাল আইডি, জন্ম সনদ, পাসপাের্ট, নাম (বাংলা), নাম (ইংরেজি), পিতার/ স্বামীর নাম (বাংলা/ ইংরেজি), মাতার নাম (বাংলা/ ইংরেজি), বর্তমান ঠিকানা, স্থায়ী ঠিকানা, ই-মেইল, মােবাইল নম্বর, জাতীয়তা, লিঙ্গ, ধর্ম, বিষয়, অগ্রাধিকার, গােপনীয়তা এ ফিল্ড গুলাের তথ্য পূরণ করতে হবে। যে ফিল্ডে লাল (*) চিহ্ন দেওয়া আছে সেগুলাের তথ্য বাধ্যতামূলক পূরণ করতে হবে।

বিবরণ অংশের সকল তথ্য পূরণ করা হয়ে গেলে প্রাপক বাছাই করতে হবে। ব্যবহারকারী সার্চ বক্স এ প্রাপকের তালিকা থেকে কাঙ্খিত প্রাপক এবং অনুলিপি প্রাপক সার্চ করে বাছাই করতে পারবেন অথবা প্রাপকের তালিকার ডান পাশে থেকে থেকে সরাসরি মূল প্রাপক এবং অনুলিপি প্রাপক বাছাই করতে পারবেন। প্রাপক বাছাই করা হয়ে গেলে খসড়া সংরক্ষণবাটনে ক্লিক করলে ডাকটি খসড়া ডাকের তালিকায় সংরক্ষিত হবে এবং প্রেরণ বাটনে ক্লিক করলে ডাকটি সরাসরি প্রেরিত হবে এবং তা তাক এর প্রেরিত তালিকায় দেখা যাবে।

ব্যবহারকারী যদি প্রাপকের তালিকায় কাঙ্খিত প্রাপক খুঁজে না পান তাহলে প্রাপকের তালিকার বাম পাশে ডাক সিল (+) যুক্ত করার বাটনে ক্লিক করতে হবে। তাহলে প্রাপকের তালিকা তৈরি করুন নামের একটি পপ-আপ উইন্ডাে ওপেন হবে। বাম দিকে পদবি নির্বাচন করুন এবং ডানদিকে নির্বাচিত। পদসমূহ প্রদর্শিত হবে। বামদিকে পদবি। নির্বাচন করুন এর নিচে দুইটি ট্যাব নিজ অফিসের পদসমূহ এবং অন্য অফিসের পদসমূহ রয়েছে নিচে প্রাপক খুঁজুন সার্চ বক্স ব্রয়েছে যেখানে প্রাপকের পদবি নাম দিয়ে সার্চ করা যাবে। প্রাপক খুঁজুন সার্চ বক্স এর নিচে নজ অফিসের প্রাপক প্রাপকের পদবি প্রদর্শিত হবে। প্রদর্শিত প্রাপকের বাম দিকে চেক-বক্স এ সিলেক্ট করলে বাছাইকৃত প্রাপক ডানদিকে নির্বাচিত পদসমূহে তালিকাতে যুক্ত হয়ে বাবে। এভাবে অন্য অফিসের কর্মকর্তাকে এপিক হিসেবে বাছাই করা যাবে। প্রাপক বাছাই করা শেষ হলেসংরক্ষণ করুনবাটনে ক্লিক করলে বাছাইকৃত প্রাপক ডাক আপলােডের পেইজে প্রাপক এর তালিকায় যুক্ত হবে। ডাক আপলােড করে প্রাপক অংশের ডানদিকেনিজ ডেস্ক প্রেরণনামের একটি বাটন আছে, এতে ক্লিক করলে একটি নােটিফিকেশান ম্যাসেজ প্রদর্শিত হবে। এখানেহ্যাঁএবংনাদুইটি বাটন প্রদর্শিত হবে।হ্যাঁবাটনে ক্লিক করলে আপলােডকৃত ডাকটি নিজ ডেস্কে প্রেরণ হবে। এক্ষেত্রে প্রাপক বাছাই করার প্রয়ােজন নেই।

১৯. খসড়া ডাকের তালিকাঃ 

খসড়া ডাক তালিকা মেন্যুতে ক্লিক করলে খসড়া ডাক এর তালিকা ওপেন হবে এবং ডান দিকে গােপনীয়তা, ডাকের ধরন, অগ্রাধিকার, সংযুক্তি, সময় ,তারিখ এ তথ্যগুলাে দেখা যাবে। এবং যে খসড়া ডাক নিয়ে কার্যক্রম করা প্রয়ােজন তার উপর মাউস হােভার করলে কিছু অ্যাকশন বাটন দেখা যাবে। তালিকা থেকে খসড়া সম্পাদনা (১) বাটনে ক্লিক করলে খসড়া ডাকটি পুনরায় এডিট করা যাবে। প্রেরণ (২) বাটনে ক্লিক করলে ডাকটি প্রেরণ হয়ে যাবে এবং পরবর্তীতে তা প্রেরিত তালিকায় দেখা যাবে। খসড়া ডাকটি মুছে ফেলার জন্য ডিলিট (3) বাটনে ক্লিক করলে ডাকটি মুছে যাবে। খসড়া ডাক তালিকা থেকে ডাকটি সম্পাদন করা, প্রেরণ করা এবং মুছে ফেলা যায়। সম্পাদন, প্রেরণ করা এবং মুছে ফেলা বাটন এ ক্লিক করলে একটা নােটিফিকেশান দেখা যাবে যেখানেহ্যাঁতে ক্লিক করলে বাটন গুলাের নির্দিষ্ট কার্যক্রম সম্পাদন হবে।

২০. নিবন্ধন বহিঃ

নিবন্ধন বহি মেন্যুর অধীনে ডাক গ্রহণ নিবন্ধন বহি, ডাক বিলি নিবন্ধন বহি, শাখা ডায়েরি নিবন্ধন বহিসমূহ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এ সকল নিবন্ধন বহি থেকে ডাক গ্রহণ, ডাক প্রেরণ এবং একটি শাখার ডাক এর কার্যক্রমের তথ্য পাওয়া যাবে। নিবন্ধন বহি গুলাে থেকে ডাক এর শাখা এবং সময়সীমা দিয়ে তালিকা ফিল্টার করা যাবে। এক্সেল অথবা পিডিএফ বাটনে ক্লিক করলে নির্দিষ্ট ফরম্যাট এ রিপাের্ট আকারে ডাউনলােড হবে।

২১. প্রতিবেদনসমূহঃ

প্রতিবেদনসমূহ মেন্যু থেকে ডাক সংক্রান্ত সকল প্রতিবেদন দেখা যাবে, যেমন- অমীমাংসিত ডাক তালিকা, মীমাংসিত ডাক তালিকা, নথিতে উপস্থাপিত ডাক তালিকা, পত্ৰজারী ডাক তালিকা, নথিজাত ডাক তালিকা। প্রতিবেদনসমূহের তালিকা দিন, দহ ও মাস দিয়ে ফিল্টার । করতে পারবেন। এক্সেল অথবা পিডিএফ বাটনের মাধ্যমে তালিকাগুলাে এক্সেলে অথবা পিডিএফ ফরম্যাটে ডাউনলােড করা যাবে।

শেষকথাঃ

আজ এ পর্যন্তই। আজ আপনারা ডাক বাছাইকরন প্রক্রিয়া, প্রেরিত ডাক, ডাক আপলোড, দাপ্তরিক ডাক আপলােড, মূল ডাক ও সংযুক্তি সমূহ, প্রেরক, ডাকের বিবরণ, প্রাপক, ডাক সিল তৈরি, নাগরিক ডাক, খসড়া ডাকের তালিকা, নিবন্ধন বহি, প্রতিবেদনসমূহ ইত্যাদি শিখলেন। কিভাবে ডিনথি/ ডি নথি  ব্যবহার, কিভাবে ডাক বাছাইকরন প্রক্রিয়া, ডাক আপলোড, খসড়া ডাকের তালিকা, ডাক সিল তৈরি করবেন তা করার নিয়ম। how to select dak upload dak.  

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button