চাকরির প্রশ্ন ও উত্তর

কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন সমাধান

কার্য সহকারী পদে lged এর কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন সমাধান ২০২১। এলজিইডি কার্য সহকারী প্রশ্ন ও উত্তর সমাধান lged karjo sohokari job solution analysis. ২০১৮ সালের রেলওয়ের সহকারী স্টেশন মাস্টার পদের ব্যাখ্যাসহ প্রশ্ন সমাধান এখানে পাবেন

কার্য সহকারী পদে lged এর কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন সমাধান ২০২১। এলজিইডি কার্য সহকারী প্রশ্ন ও উত্তর সমাধান lged karjo sohokari job solution analysis.
কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন সমাধান

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে কার্য সহকারী পদে lged এর বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। এ পদে নিয়োগ পেতে গেলে কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন ও উত্তরগুলো (বাংলা অংশ) ঝালাই করতে হবে বারবার। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরে (এলজিইডি) কার্য সহকারী পদে রাজস্ব খাতভূক্ত শূন্য পদ পূরণের জন্য ৪০০ টি শূন্য পদের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। তাই ৪০০ টি পদে নিয়োগ পেতে হলে কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন ও উত্তর (বাংলা অংশ)  নিয়ে আমাদের এ ছোট্ট আয়োজন।

কার্য সহকারী এর কাজ সম্পর্কে জেনে নিন 

ডিসি অফিস, নওগাঁতে সরকারি চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন ও উত্তর (বাংলা সাহিত্য)

১। সৈয়দ শামসুল হক ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’ নাটকটি মুক্তিযুদ্ধের শেষ প্রেক্ষাপটকে কেন্দ্র করে রচনা করেছেন।

২। মৈথিলি ভাষার কবি বিদ্যাপতি ছিলেন “পদাবলির প্রথম কবি। পদাবলী হলো ব্রজবুলি ভাষায় লেখা। কবি বিদ্যাপতি মৈথিল কোকিলঅভিনব জয়দে” নামেও খ্যাত।

৩। ‘অগ্নিবীণা’ কাব্যগ্রন্থটি কাজী নজরুল ইসলাম লিখেছেনবিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম (১৮৯৯-১৯৭৬) ১৯২২ (বাংলা ১৩২৯)   সালে তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ “অগ্নিবীণা” রচনা করেন। এ কাব্যগ্রন্থে মোট ১২ টি কবিতা রয়েছে। কবিতাগুলো হলোঃ “প্রলয়োল্লাস (১৯২২)”, “বিদ্রোহী (১৯২২ সালে বিজলী পত্রিকায় প্রথম প্রকাশিত)”, “রক্তাম্বর-ধারিণী মা”, “আগমণী”, “ধূমকেতু”, “কামাল পাশা”, “আনোয়ার”, “রণভেরী”, “শাত-ইল-আরব”, “খেয়াপারের তরণী”, “কোরবানী” ও “মোহররম”। এ কাব্যগ্রন্থটি তাঁর প্রাণপ্রিয় শিষ্য বারীন্দ্রকুমার ঘোষকে উৎসর্গ করেন। উল্লেখ্য যে, বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুলের মোট পাঁচটি গ্রন্থ ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক নিষিদ্ধ হয় এবং “অগ্নিবীণা”, “ফণিমনসা”, “সঞ্চিতা”, “সর্বহারা”, “রুদ্রমঙ্গল” বইগুলি ব্রিটিশ সরকারের কোপানলে পড়ে বাজেয়াপ্ত হবার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত বাজেয়াপ্ত হয়নি।

৪। “কবর” নাটকটি মুনির চৌধুরীর লেখা ভাষা আন্দলোনের উপর লেখা নাটক। ‘কবর’ নাটকের নাট্যকার মুনীর চৌধুরী। তবে “কবর” নামে পল্লী কবি জসিম উদ্দীনের একটি কবিতা রয়েছে যা তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিভাগে পড়াশুনা করতে রচনা করেছিলেন। ১৯৫৩ সালে নাট্যকার মুনীর চৌধুরী ঢাকা কারাগারে বন্দী থাকাকালে ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারির উপর ভিত্তি করে ‘কবর’ (একুশের পটভূমিতে বাংলা সাহিত্যের প্রথম বাংলা নাটক) নাটক রচনা করেন যা রাজবন্দীদের দ্বারা অভিনীত ছিল।

নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিঃ

৫। ১৯০২ সালে বেগম রোকেয়া (৯ ডিসেম্বর ১৮৮০- ৯ ডিসেম্বর ১৯৩২) “পদ্মরাগ উপন্যাসটি রচনা করেছেন। তাঁর অন্যান্য গ্রন্থ সুলতানার স্বপ্ন, পদ্মরাগ, মতিচূর, অবরোধবাসিনী ইত্যাদি।

৬। পাণিনি বৈয়াকরণিক বা ব্যাকরণবিদ ছিলেন। তিনি অষ্টাধ্যায়ী গ্রন্থের জন্য বিখ্যাত।

৭। ১৯০২ সালে “বীরবলের হালখাতা” (“ভারতীপত্রিকায় প্রকাশিত) রচনার মাধ্যমে প্রমথ চৌধুরী (১৮৬৮-১৯৪৬) বাংলা গদ্য চলিত রীতি প্রবর্তন করেন।

৮। সত্যেন্দ্রনাথ দত্তকে (১৮৮২-১৯২২) বাংলা সাহিত্যের “ছন্দের জাদুকরবলা হয়। তাঁর কয়েকটি ছদ্মনাম হলো কলমগীর, অশীতিপর শর্মা, ত্রিবিক্রম বর্মণ, কবিরত্ন, নবকুমার ইত্যাদি।

৯। কাজী নজরুল ইসলাম মৃত্যুক্ষুধা উপন্যাস রচনা করেছেন। অন্যান্য উপন্যাস হলো কুহেলিকা ও বাঁধনহারা। শর্টকাট- কুহেলিকা মৃত্যুক্ষুধায় বাঁধনহারা হয়ে গেল।

১০। কাহ্নপা (অন্যান্য নাম কৃষ্ণপাদ, কৃষ্ণাচার্য্য, কনহপা, কাহ্নিল পা) সবেচেয়ে বেশি (১৩টি পদ) পদের রচয়িতা। তাঁর ২৪তম পদটি এখনো পাওয়া যায়নি।

১১। “শেষের কবিতা” হলো রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত উপন্যাসরবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১৯২৭ সাল হতে ১৯২৮ সাল পর্যন্ত “শেষের কবিতা” উপন্যাসটি প্রকাশের কাজ করেন। ইহা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১০ম উপন্যাস। অসমাপ্ত ভালবাসার গল্প নামে খ্যাত “শেষের কবিতা” উপন্যাসটি যা “শেষ হয়েও হইল না শেষ” এই বিখ্যাত লাইনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে।

১২। কাজী নজরুল ইসলামকে “বিদ্রোহী কবিবলা হয়। তবে ইংরেজি ভাষায় Percy Bysshe Shelley কে রোমান্টিক এবং বিদ্রোহী কবি বলা হয়। 

কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন ও উত্তর (বাংলা ব্যকরণ)

১। গরল শব্দটি ‘অমৃত’ শব্দের বিপরীত শব্দ

২। “পত্র” শব্দটি তৎসম শব্দ

৩। সহচর + য হলো “সাহচর্য শব্দের শুদ্ধ সন্ধি বিচ্ছেদ।

৪। সত্য বই মিথ্যে বলবে না। এখানে বই” শব্দটি অনুসর্গ

৫। বর্ণ হলো ধ্বনিপ্রতীক

৬। “রূপায়ণ বানানটি শুদ্ধ

৭। “ঝাঁকের কৈবাগধারাটির সঠিক অর্থ হলো “একই স্বভাবের লোক”।

৮। “পেয়ারা শব্দটি পর্তুগীজ ভাষা থেকে এসেছে।

৯। মাত্রাহীন বর্ণ ১০ টি। পূর্ণ মাত্রার বর্ণ ৩২ টি (স্বরবর্ণ ৬টি, ব্যঞ্জনবর্গ ২৬টি) আর ৮ টি হলো বাংলা বর্ণমালায় অর্ধমাত্রার বর্ণ (স্বরবর্ণ ১টি, ব্যঞ্জনবর্গ ৭টি)।

১০। “নবান্ন” শব্দটির সঠিক সন্ধি বিচ্ছেদ হলো “নব + অন্ন”।

১১। “অজ পাড়াগাঁ শব্দটি খাঁটি বাংলা উপসর্গযোগে গঠিত হয়েছে।

১২। জটিল বাক্য হলো “যদি বৃষ্টি হয়, তবে বের হবো না”।

১৩। ‘মনগড়া” (মন দ্বারা গড়া) তৎপুরুষ মাস

১৪। “সে আসিবে বলিয়া ভরসাও করিতেছি না সাধু ভাষায় লিখিত বাক্য

এই বিজ্ঞপ্তি আপনার জন্যঃ 

কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন সম্পর্কে শেষ কথাঃ

প্রিয় পাঠক, কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন ও উত্তর (বাংলা অংশ) পড়ুন আর কার্য সহকারী পদে চাকরি করুন। কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন ও উত্তর (বাংলা অংশ)  ভাল লেগে থাকলে শেয়ার করতে ভুলবেন না। 

কার্য সহকারী পদে lged এর কার্য সহকারী নিয়োগ প্রশ্ন সমাধান ২০২১। এলজিইডি কার্য সহকারী প্রশ্ন ও উত্তর সমাধান lged karjo sohokari job solution analysis.

Related Articles

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button